সাত বাংলাদেশির ফ্রান্সের অ্যারিয়েল অ্যাওয়ার্ডস জয়

By: সুখবর ডেস্ক ২০২০-১০-১৮ ১২:০০:৫৬ পিএম আপডেট: ২০২৪-০৩-০২ ৮:৩৪:১২ এএম শিল্প
মাছধরার দৃশ্য বগুড়া। ছবি: আব্দুল মোমিন

ফ্রান্সের অ্যারিয়েল ফটোগ্রাফি অ্যাওয়ার্ডস ২০২০-এর বিভিন্ন বিভাগে সম্মাননা লাভ করেছেন বাংলাদেশের ৭ আলোকচিত্রী। আজিম খান রনি, মো. তানভীর হাসান রোহান, পিনু রহমান, তৌহিদ পারভেজ বিপ্লব, আবদুল মোমিন, আলী আশরাফ ভূইয়া ও সুজন অধিকারীর ৭টি ছবি ওই প্রতিযোগিতায় সেরা হয়েছে। 

তৌহিদ পারভেজ বিপ্লব জানান, এক ই-মেইল বার্তার আয়োজকরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী পেশাদার ও শৌখিন আলোকচিত্রীদের অংশগ্রহণে আয়োজিত এ প্রদর্শনী ও প্রতিযোগিতার আয়োজক দেশ ফ্রান্স।

বিশ্বের নানা প্রান্তের প্রতিভাবান অ্যারিয়াল আলোকচিত্রীদের ফ্রান্সের আলোকচিত্র অঙ্গনসহ বিশ্ব আলোকচিত্র অঙ্গনে ভিন্ন আঙ্গিকে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যেই মূলত এ আয়োজন।


প্রথমবারের মতো শুরু হওয়া এ প্রদর্শনী ও প্রতিযোগিতার ৬টি প্রধান বিভাগে জমা পড়া কয়েক হাজার ছবি থেকে খ্যাতনামা ১২ বিচারক বিজয়ী ছবিগুলো নির্বাচন করেন।


বাংলাদেশের সাত আলোকচিত্রীর মধ্যে আজিম খান রনির দুটি ছবি ‘পিপল’ ও ‘এডিটোরিয়াল’ ক্যাটেগরি দুটিতে প্রথম স্থান অধিকার করে। এছাড়া রনি ‘এডিটোরিয়াল’ ক্যাটেগরিতে ওভার অল অ্যারিয়াল ফটোগ্রাফার অব দ্য ইয়ার হিসেবে দ্বিতীয় স্থান অধিকারের পাশাপাশি স্পেশাল মেনশন হিসেবে আরও চারটি সম্মাননা পান।

পুরান ঢাকার গ্যাস বিস্ফোরণ, পিনু রহমানের তোলা এই ছবিটি এডিটরিয়াল ডকুমেন্টারি ক্যাটাগরিতে ৩য় স্থান অধিকার করেছে।

ভ্রমণ বিষয়ক আলোকচিত্রী মো. তানভীর হাসান রোহানের একটি ছবি ‘এডিটোরিয়াল’ ক্যাটেগরিতে চতুর্থ স্থান অধিকারের পাশাপাশি স্পেশাল মেনশনে তার রয়েছে আরও তিনটি সম্মাননা। শৌখিন ও ভার্সেটাইল আলোকচিত্রী পিনু রহমানের তোলা একটি ছবি ‘এডিটোরিয়াল’ ক্যাটেগরিতে তৃতীয় স্থান অধিকার করে।

বগুড়া ফটোগ্রাফিক ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা তৌহিদ পারভেজ বিপ্লব আরও জানান, তার একটি ছবি ‘ম্যান মেড’ ক্যাটেগরিতে চতুর্থ স্থান পেয়েছে।

প্রকৃতি বিষয়ক শৌখিন আলোকচিত্রী আলী আশরাফ ভূইয়া, ভ্রমণ বিষয়ক আলোকচিত্রী আবদুল মোমিন এবং সুজন অধিকারীর তোলা ছবিও স্পেশাল মেনশন লাভ করে।


বিজয়ীরা জানান, এ বছরের এপ্রিল মাসে এ প্রতিযোগিতার ছবি জমা নেওয়া শুরু হয়, যা শেষ হয় ২০ সেপ্টেম্বর। ৬৫টি দেশ থেকে ছবি জমা পড়া কয়েক হাজার ছবি থেকে থেকে বাছাই করা হয় বিজয়ী ছবিগুলো।


প্যারিস শহরের প্রাণকেন্দ্রে এবছর ১৪ ও ১৫ নভেম্বর প্যারিস ফটো উৎসব চলাকালে বিজয়ী ছবিগুলো প্রদর্শনীর কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতির কারণে এ বছর অনলাইনেই প্রদর্শনীসহ বাকি আয়োজন সম্পন্ন হবে।